1. netpeonbd@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  2. netpeoneditor@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  3. admin@irisnewsbd.com : irisnewsbd : Ali Siddiki
  4. naimurrahman4969@gmail.com : naimur rahman naeem : naimur rahman naeem
  5. raju.aamar.fm@gmail.com : Raisul Islam Chowdhury : Raisul Islam Chowdhury
  6. azizul.basir@gmail.com : Azizul Basir : Azizul Basir
  7. mdriyadhasan700@gmail.com : Riyad hasan : Riyad hasan
গণটিকা কেন দুপুর আড়াইটার পর? - Iris News
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

গণটিকা কেন দুপুর আড়াইটার পর?

সংবাদ সংগ্রহকারীঃ
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৯ প্রদর্শিত সময়ঃ
গণটিকা কেন দুপুর আড়াইটার পর?
গণটিকা কেন দুপুর আড়াইটার পর?

রাজধানীর মগবাজারের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড। মধুবাগ আমবাগান এলাকা। ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ের সামনে খালি জায়গায় বসে আছেন টিকা নিতে আসা মানুষ। তাদের মধ্যে যেমন অশীতিপর বৃদ্ধ রয়েছেন, তেমনি আছেন যুবক-তরুণ-মাঝ বয়সীরাও।নির্ধারিত লাইন মানুষ দাঁড়িয়ে আছেন, কেউ লাইনের ভেতরেই বসে পড়েছেন। এর বাইরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বসে রয়েছেন অসংখ্য মানুষ। কারও হাতে টিকাকার্ড, কারও হাতে জাতীয় পরিচয়পত্র। জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে এলেই টিকা নেওয়া হবে, এমন খবরে কেউ কেউ জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে এলেও টিকা নিতে পারছেন না। বলে দেওয়া হয়েছে, কেবল মোবাইল ফোনে খুদেবার্তা এলেই টিকা দেওয়া হবে। এমন বার্তার পর তারা মোবাইল ফোনে কারও সঙ্গে কথা বলছেন, পরামর্শের আশায়।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী গণটিকাদান কর্মসূচির ঘোষণা দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এদিনে নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচির ৫ লাখসহ মোট ৮০ লাখ টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।টিকাদান কেন্দ্রে লাইন থেকে কিছুটা দূরে হাতে জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন সামাদ ভুঁইয়া। কথা হয় ৫২ বছর বয়সী সামাদ ভুঁইয়ার সঙ্গে। টিকা দেওয়ার লাইনে কেন দাঁড়াননি জানতে চাইলে কিছুটা হতাশা নিয়ে বলেন, ‘টিভির খবরে শুনছি জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে আইলেই টিকা দেওয়া যাইবো। কিন্তু ওখানে গেছি পরে কইছে, আবেদনের কাগজ নিয়া আসতে।’সঙ্গে থাকা মেয়ে বলেন, ‘সকাল সাড়ে নয়টায় এসেছি। কিন্তু এখন টিকা নেওয়া যাবে না বলে জানাইছে। বলছে, অ্যাপ্লিকেশন ( নিবন্ধন) করতে।

ভোটার আইডি কার্ড (জাতীয় পরিচয়পত্র) নিয়া যারা যারা আসছিল, তাদের সবাইকে ফেরত দিছে। কত কত মানুষ ফেরত গেলো টিকা নিতে না পাইরা।’সামাদ ভুঁইয়ার সঙ্গে কথা শেষ করে ভেতরের দিকে এগিয়ে যেতেই দেখা যায় টিকা প্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইন। লাইনের ভেতরেই পত্রিকা বিছিয়ে বসেছিলেন মগবাজার থেকে আসা নূর মোহাম্মদ।বসে আছেন কেন জিজ্ঞাসা করতেই বললেন, ‘আর কতক্ষণ দাঁড়ায়ে থাকবো? পায়ের ব্যথায় এমনিতেই দাঁড়ায়ে থাকতে পারি না। আর আজ সকাল থেকে এসে এখানে দাঁড়ায়ে থাকতে হচ্ছে।’

নূর মোহাম্মদ জানালেন, টিকা নেবার জন্য এখানে এসেছেন সকাল সাতটায়।সামনে পেছনে দীর্ঘলাইন। সবাই দাঁড়িয়ে আছেন টিকা দেওয়া হবে এই আশায়। কিন্তু লাইনে দাঁড়ানো মানুষকে বলা হয়েছে, দুপুর আড়াইটার পর টিকা দেওয়া শুরু হবে। তাই লাইনের ভেতরেই পত্রিকা বিছিয়ে বসে রয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘লাইন থেকে গেলেই এখানে অন্য মানুষ ঢুকে পড়বে।’’‘আমাদের জন্য দোয়া করবেন, সকাল বেলায় একটু পানি খেয়ে চলে এসেছিলাম। বৃদ্ধদের জন্য আলাদা লাইনের কথা শুনেছিলাম। ভেবেছিলাম ১০টার ভেতরে বাসায় চলে যাবো, কিন্তু এখানে বৃদ্ধদের জন্য পৃথক লাইন তো দূরের কতা, কোনও ব্যবস্থাপনাই নেই’—বলছিলেন সৌম্য চেহারার নূর মোহাম্মদ।

‘অনেকক্ষণ হয় আসছি। কিন্তু দুপুর আড়াইটার আগে টিকা দেবে না বলে জানানো হলো, তাই বসে আছি। কিন্তু এখানে এত মানুষ, কখন টিকা দেওয়া যাবে সেটা জানি না’—বলেন ৫২ বছরের জামাল উদ্দিন।‘জানানো হলো, সকাল নয়টা থেকে টিকা দেওয়া হবে, এত এত মানুষ এলো। এখন বলা হচ্ছে আড়াইটায় দেওয়া হবে। এটা বাসিন্দাদের জানানো হয়েছে কিনা সেটা আপনি সাংবাদিক হিসেবে অফিসে (ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিস) জিজ্ঞেস করেন প্লিজ। এই হয়রানির কোনও মানে হয় না’—ক্ষোভ বৃদ্ধের কণ্ঠে।

সকাল নয়টায় গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয় সরকার থেকে। কিন্তু উত্তর সিটি করপোরেশন টিকাদান কর্মসূচি শুরু করেছে দুপুর আড়াইটার পর। এতে অনেকেই টিকা না নিয়ে ফেরত গেছেন। যারা বসে আছেন শেষ পর্যন্ত দেখবেন বলে তারা উত্তর সিটি করপোরেশনের এ সিদ্ধান্তে ক্ষোভ জানাচ্ছেন। তারা বলছেন, এ বিষয়ে ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের কিছু জানানো হয়নি।দুপুর আড়াইটা থেকে কেন টিকা দেওয়া হবে জানতে চাইলে ওয়ার্ড সচিব রেজাউল ইসলাম বলেন, ‘সরকার নির্দেশ দিয়েছে, আমরা পরে সংশোধন করেছি সময়’। কে নির্দেশ দিয়েছে জানতে চাইলে তিনি প্রথমে বলেন, ‘স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে নির্দেশ দিয়েছে।’

স্বাস্থ্য বিভাগ দুপুর আড়াইটা থেকে নয়, সকাল নয়টা থেকে টিকা কর্মসূচি শুরু করার নির্দেশ দিয়েছে জানালে তিনি বলেন, ‘ঘটনা হচ্ছে- নয়টা থেকেই। কিন্তু নয়টা থেকে বিভিন্ন জায়গায় প্রোগ্রাম আছে। কাউন্সিলররা সবাই চলে গেছে ওখানে, এটা তো রাষ্ট্রীয় প্রোগ্রাম।’ ‘যার কারণে মেয়র দুপুর আড়াইটা থেকে শুরু করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন’—বলেন তিনি।তিনি বলেন, ‘আজ ৫০০ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে, আগামীকাল দেওয়া হবে ৫০০ মানুষকে। টিকা দেওয়ার নির্দিষ্ট টাইম নাই।’

দুপুর আড়াইটা থেকে উত্তর সিটি করপোরেশন কেন টিকাদান কর্মসূচি শুরু করবে—জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানিয়েছেন, উত্তর সিটি করপোরেশন সকাল থেকে টিকা দিচ্ছে না। এটা তারা জানিয়েছে। মাইকিং করে বলা হয়েছে। এখন কেউ কেউ সঠিক তথ্যের ভিত্তিতে না এসে যদি আগে আসে তাহলে কিছুটা বিড়ম্বনা হতেই পারে। উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে অনুষ্ঠান থাকায়, দুপুর আড়াইটা থেকে টিকাদান কর্মসূচি শুরু করবে বলে আমাদের জানিয়েছে।স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছিল, বয়স্ক এবং অসুস্থদের জন্য আলাদা লাইন করা হবে। টিকা কেন্দ্রগুলোতেও স্বাস্থ্য অধিদফতরের সে নির্দেশনারও কোনও প্রতিফলন দেখা যায়নি।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর

কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । আইরিস নিউজ বিডি.কম,আইরিস মিডিয়া বাংলাদেশের একটি  প্রতিষ্ঠান ।

error: Content is protected !!