1. netpeonbd@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  2. netpeoneditor@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  3. admin@irisnewsbd.com : irisnewsbd : Ali Siddiki
  4. raju.aamar.fm@gmail.com : Raisul Islam Chowdhury : Raisul Islam Chowdhury
  5. azizul.basir@gmail.com : Azizul Basir : Azizul Basir
  6. mdriyadhasan700@gmail.com : Riyad hasan : Riyad hasan
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন
দিনের সেরা অংশ |
ফোল্ডেবল স্মার্টফোন জগতে প্রবেশ করতে যাচ্ছে টেক জায়ান্ট গুগল রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে মার্কিন রাষ্ট্রদূত শিশুদের টিকা কার্যক্রম শুরু করা হবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর ইভ্যালির সিইও রাসেল ও তার স্ত্রী সহ আরো ২০ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা এসএসসি পরীক্ষা আগামী ৫ থেকে ১১ নভেম্বর এবং এইচএসসি পরীক্ষা ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ডেঙ্গু আপডেট: গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৪১ জন হাসপাতালে ভর্তি অপেক্ষা শেষে আবারও মাঠে গড়াচ্ছে আইপিএল ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত এখনও চূড়ান্ত হয়নিঃ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন পেয়েছেন সময় টিভির রিপোর্টার তানভীর ৫৯টি অবৈধ ও অনিবন্ধিত আইপি টিভি বন্ধ করলো বিটিআরসি

বাবুনগরীর স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নতুন আমির ঘোষণা

সংবাদ সংগ্রহকারীঃ
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৪ প্রদর্শিত সময়ঃ
বাবুনগরীর স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নতুন আমির ঘোষণা
বাবুনগরীর স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নতুন আমির ঘোষণা

মাত্র ১১ মাসের ব্যবধানে তিন শীর্ষ নেতাকে হারাল দেশের কওমি মাদরাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। সবশেষ গত বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে মারা যান হেফাজতের আমির ও চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদরাসার শাইখুল হাদিস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। তবে এ শোক সংবাদের অর্ধদিন না পেরোতেই বাবুনগরীর স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নতুন আমিরের নাম ঘোষণা করা হয়। তাকে দাফনের আগেই কেন এমন তাড়াহুড়ো করা হলো, এ নিয়ে নানা আলোচনা চলছে হেফাজতের অন্দরে ও বাইরে।

জানা যায়, জুনায়েদ বাবুনগরীর মৃত্যুর পর তার দাফনের স্থান নির্ধারণ ও হেফাজতের নতুন আমির নির্বাচনের জন্য বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় হাটহাজারী মাদরাসায় (দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম) বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে রাত পৌনে ১১টার দিকে হেফাজতের মহাসচিব নুরুল ইসলাম জিহাদী মাদরাসার মাইকে জুনাইদ বাবুনগরীর মামা মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে ভারপ্রাপ্ত আমির ঘোষণা দেন।

আমিরের দায়িত্ব পাওয়ার আগে মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী ছিলেন হেফাজতের প্রধান উপদেষ্টা। এর আগে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেতৃত্বাধীন হেফাজতের কমিটিতে সিনিয়র নায়েবে আমির হিসেবে দায়িত্বপালন করেন তিনি। এছাড়া চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া আজিজুল উলুম বাবুনগরের মহাপরিচালকও তিনি।

তড়িঘড়ি করে হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত আমির হিসেবে মুহিবুল্লাহর নাম ঘোষণা হতেই নানা আলোচনা শুরু হয়। বিশেষ করে তার সমালোচক মহলে এ নিয়ে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

তবে এতো দ্রুত তাকে দায়িত্ব দেওয়ার কারণ হিসেবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হেফাজতের এক নেতা জানান, হাটহাজারী মাদরাসা ঘিরে দলটির কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এ কারণে মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে বেছে নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া হেফাজতের শুরু থেকেই তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।

হেফাজত নেতারা বলছেন, বৃহস্পতিবার বাবুনগরীকে দাফনের আগেই হাটহাজারী মাদরাসায় জরুরি পরামর্শ হয়। সেখানে হেফাজত নেতাদের মুক্তি ও মাদরাসা খোলার কার্যক্রম যেন ঝিমিয়ে না পড়ে সেজন্য সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করেননি দলের সিনিয়র নেতারা।

এর আগে ২০১৯ সালে কওমি মাদরাসার সনদের সরকারি স্বীকৃতি ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান নিয়ে অভ্যন্তরীণ বিরোধে মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী হেফাজতের নায়েবে আমিরের পদ ছেড়েছিলেন বলে জানা যায়। তবে তার সেই পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়নি।

২০১০ সালের ১৯ জানুয়ারি চট্টগ্রাম থেকে হেফাজতের যাত্রা শুরু। চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদরাসার তৎকালীন মহাপরিচালক শাহ আহমদ শফী সংগঠনটির প্রতিষ্ঠা করেন। এক দশকেরও বেশি সময় সংগঠনটি চালিয়ে ২০২০ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর মারা যান আহমদ শফী।

তার মৃত্যুর পর ওই বছরের ১৫ নভেম্বর জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির ও নূর হোসাইন কাসেমীকে মহাসচিব করে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়। পরের মাস ডিসেম্বরের ১৩ তারিখে নূর হোসাইন কাসেমীও মারা যান। এরপর সংগঠনের নায়েবে আমির নূরুল ইসলাম জিহাদীকে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়।

তবে গত মার্চে নরেন্দ্র মোদির সফরকেন্দ্রিক বিক্ষোভ থেকে সহিংসতার ঘটনার পর পুলিশি অভিযানে চাপে পড়ে ২৫ এপ্রিল রাতে হেফাজতের ওই কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। আবার ৭ জুন জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির ও নূরুল ইসলাম জিহাদীকে মহাসচিব করে নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করে হেফাজতে ইসলাম।

সংগঠনের নেতা ও মহাসচিব পুত্র মোরশেদ বিন নূর জিহাদী জাগো নিউজকে বলেন, ‘সবার সঙ্গে ফোনে কথা বলেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শুরা সদস্যরা। মুহিব্বুলাহ হুজুর এখন সবচেয়ে বেশি জ্যেষ্ঠ ও মুরুব্বি। তাই তাকেই আমির করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জ্যেষ্ঠ নেতারা।’

তাড়াহুড়ো করে আমিরের নাম ঘোষণা করার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘সবাই একসঙ্গে ছিলেন, সবাই পরামর্শ করেছেন। একসঙ্গে থাকা অবস্থায় সবার সামনে এলানটা (ঘোষণা) হয়ে গেলে সবচেয়ে ভালো হয়। আনুষ্ঠানিকতা করতে অনেক সময় লেগে যায়।’

মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে ভারপ্রাপ্ত আমির ঘোষণার জুনায়েদ বাবুনগরীর নামাজে জানাজা হয়। এরপর রাত ১২টার দিকে তাকে দীর্ঘদিনের প্রিয় কর্মস্থল দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার গোরস্থানে চিরশায়িত করা হয়।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর

কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । আইরিস নিউজ বিডি.কম,আইরিস মিডিয়া বাংলাদেশের একটি  প্রতিষ্ঠান ।

error: Content is protected !!