1. netpeonbd@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  2. netpeoneditor@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  3. admin@irisnewsbd.com : irisnewsbd : Ali Siddiki
  4. raju.aamar.fm@gmail.com : Raisul Islam Chowdhury : Raisul Islam Chowdhury
  5. azizul.basir@gmail.com : Azizul Basir : Azizul Basir
  6. mdriyadhasan700@gmail.com : Riyad hasan : Riyad hasan
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন

করোনা মহামারিতে ভারতের ৪০ লাখের বেশি মানুষের প্রাণহানি

সংবাদ সংগ্রহকারীঃ
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১
  • ১৫ প্রদর্শিত সময়ঃ
করোনা মহামারিতে ভারতের ৪০ লাখের বেশি মানুষের প্রাণহানি
করোনা মহামারিতে ভারতের ৪০ লাখের বেশি মানুষের প্রাণহানি

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিপর্যস্ত ভারতের প্রকৃত মৃতের সংখ্যা সরকারি হিসেবের চেয়ে ১০ গুণ বেশি হতে পারে। প্রকাশিত নতুন গবেষণায় এসেছে, করোনা মহামারিতে ভারতের অতিরিক্ত ৪০ লাখের বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভলপমেনট-এর গবেষণায় এমন উদ্বেগজনক তথ্য সামনে এসেছে।

গত কয়েক মাসে ভারতে করোনায় বহু মানুষ প্রাণ হারায়। আক্রান্তও নিয়মিত রেকর্ড গড়ে। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয় যে মৃতদের দাফনের জায়গার প্রবল সংকট দেখা দেয়। বিশেষ করে ভারতীয় ধরণ করোনার অতিসংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা অসম্ভব হয় মোদি সরকারের। ভেঙে পড়ে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা।বিশ্বের অধিক জনবহুল এই দেশটিতে করোনার প্রকৃত মৃতের সংখ্যা নিয়ে ভারতের সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী এ পর্যন্ত চার লাখ ১৪ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভলপমেনট-এর প্রকাশিত গবেষণায় বিশেষজ্ঞরা বলছে, মহামারিতে ভারতের এই হিসাবের চেয়ে দশগুণ বেশি প্রাণ হারিয়েছেন। তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে গবেষকদের মতে, করোনাকালে দেশটিতে ৪০ লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু ঘটেছে।

সরকারি পরিসংখ্যানের চেয়ে দশগুণ বেশি মৃত্যু
মহামারিতে ভারতের মৃত্যুর সঠিক সংখ্যা বের করতে গত ২১ জুন পর্যন্ত তিনটি ভিন্ন ভিন্ন উৎস ব্যবহার করেন গবেষকরা। বিভিন্ন জরিপ চালিয়ে সরকারি পরিসংখ্যানের চেয়ে মৃত্যুর হিসাবে বিস্তর ফারাক দেখা গেছে।গবেষকরা সতর্ক করেছেন যে, সরকারের প্রতিটি পদ্ধতিতেই কিছু দুর্বলতা আছে। যেমন অর্থনৈতিক অবস্থার জরিপে মৃত্যুর বিষয়টি নেই। পক্ষান্তরে গবেষকরা সব রকম মৃত্যুকে আমলে নিয়েছেন এবং তা আগের বছরের মৃত্যুহারের সঙ্গে তুলনা করেছেন। বিশ্বজুড়ে এই পদ্ধতিকে যথাযথ বলে বিবেচনা করা হয়। অন্য দেশগুলোর তুলনায় ভারতে মৃত্যুর সংখ্যা কম করে দেখানোর কিছু কারণও থাকতে পারে।

করোনায় প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা সরকারি হিসেবের চেয়ে অনেক বেশি তা সরকারেরও ধারণা ছিল। স্থানীয় গবেষকরাও বলে আসছিল, সরকারি হিসাবের চেয়ে এই সংখ্যা বড়জোর ৫ কিংবা ৭ গুণ বেশি হতে পারে। কিন্তু এবারের পরিসংখ্যানকে ছাড়িয়ে গেছে সব। গত দেড় বছরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে মারা গেছেন বহুসংখ্যক মানুষ। মৃত্যুর অনেক হিসাব দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পৌঁছায়নি বলেও অনেকটাই নিশ্চিত। ফলে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে গোলমাল রয়েছে মোদি সরকারের ভেতর।

গবেষক অরবিন্দ সুব্রামানিয়ান জানিয়েছেন, ‘মহামারিজনিত কারণে এত সংখ্যক মৃত্যু অতীতে ভারত দেখেনি। সরকারি হিসেবের বাইরে গত দেড় বছরে শত শত নয়, লাখ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে। যা আধুনিক ভারতের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ মানব ট্রাজেডি বলে উদ্বেগ জানান তিনি।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর

কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । আইরিস নিউজ বিডি.কম,আইরিস মিডিয়া বাংলাদেশের একটি  প্রতিষ্ঠান ।

error: Content is protected !!