1. netpeonbd@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  2. netpeoneditor@gmail.com : Desk Report : Desk Report
  3. admin@irisnewsbd.com : irisnewsbd : Ali Siddiki
  4. raju.aamar.fm@gmail.com : Raisul Islam Chowdhury : Raisul Islam Chowdhury
  5. azizul.basir@gmail.com : Azizul Basir : Azizul Basir
  6. mdriyadhasan700@gmail.com : Riyad hasan : Riyad hasan
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৬:১৮ অপরাহ্ন

পঞ্চগড়ে লকডাউনের মধ্যেও বসেছে কোরবানির পশুর হাট

সংবাদ সংগ্রহকারীঃ
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১
  • ২৩ প্রদর্শিত সময়ঃ
কঠোর লকডাউনে বসলো পশুর হাট
কঠোর লকডাউনে বসলো পশুর হাট

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনের মধ্যেও পঞ্চগড়ে কোরবানির পশুর হাট বসেছে। বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) লকডাউন এবং বৃষ্টি উপেক্ষা করে জেলার সবচেয়ে বড় পশুর হাট রাজনগড় ক্রেতা-বিক্রেতাদের সমাগমে জমে উঠেছে।একইসঙ্গে ঝুঁকিপূর্ণ এ পরিস্থিতিতে সীমান্ত বাধা পেরিয়ে দেশে ঢুকছে ভারতীয় গরু। এতে সীমান্ত দিয়ে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট আরও প্রবেশের আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। যদিও সীমান্তে জনবলের পাশাপাশি নজরদারি বাড়ানোর কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি।

সরেজমিনে দেখা যায়, আজ কঠোর লকডাউনের প্রথমদিনে জেলার প্রধান এবং সবচেয়ে বড় পশুর হাট রাজনগড় ছিলো জমজমাট। দেশি গরুর পাশাপাশি হাটে ভারতীয় গরুতেও বাজার সয়লাব ছিলো। ক্রেতা-বিক্রেতাদের জটলা ছিলো চোখে পড়ার মতো। হাটের পশ্চিমাংশে বসেছে চা-পানের দোকান। সেখানে বসে অনেকে চা ও ধূমপান করছে। সারি সারি করে গরু সাজানো, পাশে মানুষ দীর্ঘ লাইনে মানুষ দাঁড়ানো। হাটের উত্তর পার্শ্বে চলছে ছাগল-ভেড়ার বেচাকেনা, সেখানেও জনসমাগম। মাস্ক থাকলেও সেটা ঢাকতে পারেনি নাক-মুখ।

এদিকে, পঞ্চগড়ের পশুর হাটগুলোতে ভারতীয় গরুর আমদানি দিন দিন বাড়ছে। ২৮২ কিলোমিটার সীমান্তবেষ্টিত জেলার তিন দিকে রয়েছে ভারত। এই সীমান্তের বেশ কিছু এলাকায় নেই কাঁটাতারের বেড়া। আর বেশিরভাগ সীমান্তেই রয়েছে অভিন্ন নদী। চোরকারবারিরা এই স্থানগুলো দিয়েই গরু আনা-নেওয়াসহ যাতায়াত করে। এতে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট আরও ব্যাপক আকারে প্রবেশের আশঙ্কা করছেন সাধারণ মানুষ। দুই দেশের চোরাকারবারি ও গরু ব্যবসায়ীরা অবাধে মেলামেশা করছে, এটি মানুষের মূল শঙ্কার কারণ।

জেলার সদর উপজেলার খামারি শহিদুল ইসলাম বলেন, প্রতিবছর কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে দেশীয় গরু লালন-পালন করি। এবারেও তিনটি গরু প্রস্তুত করেছি। কিন্তু হাটবাজারগুলোতে ভারতীয় গরু আসছে। হাটে ভারতীয় গরু এলে আমার মতো ছোট খামারিরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।সদর উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের গরু ব্যবসায়ী আব্দুল কুদ্দুস জানান, পঞ্চগড়ের বিভিন্ন হাট লকডাউনে খোলা রয়েছে। সামনে কোরবানির ঈদ। সেই সঙ্গে বেড়েছে করোনার সংক্রমণ। জেলার পশুর হাটগুলোতে বাড়ছে ভারতীয় গরু। এভাবে চলতে থাকলে তো আমাদের দেশীয় গরু খামারিদের লোকসান গুনতে হবে, অন্যদিকে করোনা সংক্রমণও বাড়বে।

রাজনগড় পশুর হাটের ইজারাদার পক্ষের হজরত আলী বলেন, আমরা ক্রেতা-বিক্রেতা সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে আহ্বান করেছি। যারা এসব মানছেন না, তাদের হাটে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। যার মুখে মাস্ক নেই, তাকে আমরা মাস্ক পরিয়ে দিচ্ছি। হাট চলাকালে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়া বৃহস্পতিবারের হাটে ক্রেতা-বিক্রেতার সংখ্যা এমনিতেই তুলনামূলক কম।

পঞ্চগড় ১৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল খন্দকার আনিসুর রহমান জানান, সীমান্তে মানুষ পারাপার বন্ধে টহল জোরদার করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টাই আমরা পেট্রোলিং করছি। যাতে কোনও মানুষ কিংবা গবাদিপশু কেউ পারাপার হতে না পারে। আমরা সবসময় কঠোরভাবে সীমান্তে নজরদারি করি। করোনায় আরও বেশি করে আমাদের নজরদারি চলছে।

পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক মো. জহুরুল ইসলাম জানান, পশুর হাট বন্ধের বিষয়ে কোনও নির্দেশনা আমরা পাইনি। তবে পশুর হাটে যদি স্বাস্থ্যবিধি মানা না হয় বা করোনার ঝুঁকি বেড়ে যায়, তাহলে আলোচনা সাপেক্ষে আমরা স্থানীয়ভাবে পশুর হাট বন্ধ করে দেবো। ভারতীয় গরুর বিষয়টি আমি আপনাদের মাধ্যমে জানলাম। এ বিষয়ে বিজিবিকে আরও কঠোর হতে বলা হবে।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর

কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । আইরিস নিউজ বিডি.কম,আইরিস মিডিয়া বাংলাদেশের একটি  প্রতিষ্ঠান ।

error: Content is protected !!